Menu

মাদারীপুরে ফেরিতে যাত্রীদের চাপে ৫ জনের মৃত্যু

সাতমাথা ডেস্ক: মাদারীপুরের শিবচরে বাংলাবাজার ফেরিঘাটে যাত্রীদের চাপাচাপিতে এক কিশোরসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বাংলাবাজার ফেরিঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শিমুলিয়া থেকে যাত্রী বোঝাই করে এনায়েতপুরি নামের একটি ফেরি বাংলাবাজারের উদ্দেশে রওনা হলে মাঝ পদ্মায় তীব্র গরমে জ্ঞান হারায় চারজন। পরে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

এর আগে একটি ফেরি থেকে অসুস্থ হয়ে এক কিশোরেরও মৃত্যু হয়। নিহত ওই কিশোরের বাড়ি শরিয়তপুরের নড়িয়াতে।

শিবচর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ফেরিতে কিশোরসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, গরম ও হিটস্ট্রোকের কারণে তাদের মৃত্যু হতে পারে।

নিহত দু’জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। নড়িয়ার আনছার নামের কিশোর (১৫), নিপা (৪০), তার স্বামী আলমগীর হোসেন। তার বাড়ি কালকনি বাড়িগ্রামে। নারী একজন ও পুরুষ দু’জনের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।

তিনি আরো জানান, বুধবার বেলা ১১টার দিকে তিন নম্বর ফেরিঘাটে শাহ পরান নামের রোরো ফেরিটি ভিড়লে নামার সময় যাত্রীদের চাপে আনছার মাদবর নামের এক কিশোর যাত্রীদের চাপে অসুস্থ হয়ে ফেরির পন্টুনেই মারা যায়। তার বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার কালিকা প্রসাদ গ্রামে।

অন্যদিকে এনায়েতপুরী ফেরিতে দুপুর দেড়টার দিকে বাংলাবাজারের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ফেরি ছাড়ার সময় পন্টুনে কিছু যাত্রী দাঁড়ানো ছিলেন। পন্টুন উঠানোর সময় এটি খাড়া হয়ে গেলে তারা অন্য যাত্রীদের মধ্যে পড়ে যান। এসময় হুড়োহুড়ি ও গরমে তারা মারা যান বলে ধারণা করা হচ্ছে। ফেরিটি বাংলাবাজারে পৌঁছালে পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

nineteen − fifteen =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ