Menu

ভারতের সাবমেরিন আটক করেছে পাকিস্তান

সাতমাথা অনলাইন ডেস্ক: পাকিস্তানের জলসীমায় ঢুকে পড়া ভারতীয় একটি সাবমেরিন আটকের ভিডিও প্রকাশ করছে ইসলামাবাদ। ভিডিওতে দেখা যায় সাবমেরিনটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করছে পাক নৌবাহিনী। পরে পাকিস্তানের জলসীমায় পুরোপুরি ঢোকার পর সাবমেরিনটিকে আটক করা হয়।

এটি সোমবার রাতে পাকিস্তানের জলসীমায় গোপনে প্রবেশের চেষ্টা করছিল বলে জানায় পাকিস্তানের নৌবাহিনী। তবে আটকের পর এটিকে শান্তির জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে নৌবাহিনী সূত্র জানায়।

মঙ্গলবার পাকিস্তানের নৌবাহিনীর মুখপাত্র ভারতীয় সাবমেরিন আটকের খবর জানায়। এতে জানানো হয় পাকিস্তানের জলসীমায় প্রবেশের পরই সাবমেরিনটি আটক করা হয়।

পারমাণবিক অস্ত্রের অধিকারী দুই প্রতিবেশী দেশের সীমান্তে সপ্তাহব্যাপী চলা উত্তেজনার মধ্যে ভারতীয় নৌবাহিনীর এ অভিযান আগুনে ঘি ঢালার কাজ করেছে। ২০১৬ সাল থেকে এ নিয়ে দুবার ভারতীয় সাবমেরিনকে রুখে দিল পাকিস্তানি নৌবাহিনী।

নৌবাহিনীর ওই মুখপাত্র আরও বলেন, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ওই ভারতীয় সাবমেরিনটি ধ্বংস করা পাকিস্তানের নৌবাহিনীর কাছে কোনো বিষয়ই ছিল না। কিন্তু পাকিস্তান সরকার যুদ্ধ নয়, শান্তির নীতি গ্রহণ করায় সাবমেরিনটিকে অক্ষত অবস্থায় ছেড়ে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর অন্তত ৪৯ জন সদস্য নিহত হন। এই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে।

এ হামলার জেরে গত মঙ্গলবার কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি করেছে দেশটি।

এখানেই থেমে নেই, গত বুধবার পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় দুই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করেন পাকিস্তানি সেনারা। এ সময় ভারতীয় এক পাইলটকে আটক করে পাকিস্তান। পরে শান্তির শুভেচ্ছাদূত হিসেবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বন্দি পাইলটকে ভারতের কাছে হস্তান্তর করে।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

2 + nineteen =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ