Menu

বিএনপি নেতা শাহীন হত্যার ঘটনায় মামলা : এখনো অন্ধকারে পুলিশ!


সাতমাথা অনলাইন: বিএনপি নেতা এ্যাড. মাহবুব আলম শাহীন খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বগুড়া সদর থানায় মামলাটি রেকর্ড করা হয় (মামলা নং-৪৭)। নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ছয় জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে এবং অজ্ঞাত আরো পাঁচজনকে আসামী করা হয়েছে। নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী মঙ্গলবার দুপুর পৌনে একটার দিকে এজাহার নিয়ে থানায় প্রবেশ করেন এবং বিকেল সাড়ে চারটার পর থানা থেকে বেরিয়ে যান। এই সময়ের মধ্যে মামলার বাদী থানায় অপেক্ষা করেন। এদিকে, বিএনপি নেতা শাহীন খুনের ৪৮ ঘন্টা পরেও পুলিশ কোন রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতারও করতে পারেনি।

নিহত শাহীনের ভাতিজা রাসেল বলেন, মামলা করার আগেই একটি প্রভাবশালী মহল থেকে নিহতের পরিবারের সদস্যদেরকে হুমকী দেয়া হচ্ছিল। একারনে কে বাদী হবেন তা নির্ধারন করতে পারিবারিক ভাবে বৈঠকে বসতে হয়। অবশেষে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা থানায় রেকর্ড হওয়ার আগে এবং পরে নিহত শাহীনের স্ত্রী আসামীদের ব্যাপারে সাংবাদিকদের কাছে মুখ খোলেননি।
বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান মামলা দায়ের করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে, তদন্তের স্বার্থে তিনি আসামীদের নাম এবং এজাহারে বর্নিত বর্ননা বিস্তারিত বলতে চাননি।

এদিকে, পুর্ব ঘোষিত কর্মসুচির অংশ হিসেবে বগুড়া জেলা বিএনপি মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় শহরে কালো পতাকা র‌্যালী এবং প্রতিবাদ সভা করেছে। র‌্যালীটি শহরের সাতমাথা, থানামোড় হয়ে জেলা বিএনপি অফিসের সামনে শেষ হয়। এরপর জেলা বিএনপি অফিসের সামনে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, বিএনপি নেতা শাহীন হত্যার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশ ব্যর্থ হলে বগুড়ার মানুষ ঘরে বসে থাকবে না। শাহীন হত্যার বিচারের দাবীতে বগুড়ার মানুষ রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।

বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আগামীকাল বৃহস্পতিবার বগুড়ায় আসছেন বলে দলীয় সূত্রে জানাগেছে। তিনি নিহত শাহীনের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সাথে সাক্ষাত করবেন।

অপরদিকে, বগুড়া মটর মালিক ও শ্রমিক ঐক্য পরিষদেরর পক্ষ থেকে শাহীন হত্যার প্রতিবাদে চারমাথা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল চত্বরে মঙ্গলবার দুপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. মাহবুব আলম শাহীন পরিবহন ব্যবসায়ী ছিলেন। গত রোববার রাতে শাহীন বগুড়ার নিশিন্দারা উপশহরে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হন। এঘটনায় মামলা হলেও মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

five × 3 =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ