Menu

বগুড়ায় মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল কলেজের নামে সরকারী জায়গা দখল


স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার সাজাপুর দাড়িকামারী পাড়ায় টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে সরকারী ৫৯ শতাংশ সম্পত্তি দখল করে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। এ জায়গার একটি অংশে মাদ্রাসাও রয়েছে। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে।
বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয়রা চলাচল করার সময় জায়গাটি নতুন টিন দিয়ে ঘিরে রাখা দেখতে পান। এর আগে ওই জায়গা সাজাপুর দাড়িকামারী পাড়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার দখলে ছিলো। এই ঘটনায় কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয় নি উপজেলা প্রশাসন।
বগুড়া জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডর ও মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালক আব্দুল মান্নান সরকার জানান, কারা জায়গাটি ঘিরেছে তার জানা নেই। তবে ওই স্কুলের পরিচালক বলে তিনি স্বীকার করেন। ওই স্কুলের উপদেষ্টা হিসেবে নাম রাখা হয়েছে বগুড়া জেলা আ’লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান একেএম আসাদুর রহমানকে।
শাজাহানপুর উপজেলার সাজাপুর দাড়িকামারী পাড়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আবুল খায়ের জানান, জমিদারের ওয়ারিশরা জায়গাটা তাদের দান করেছেন। পরে জানতে পেরেছেন ৩০ শতাংশ খাস রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে তারা পুরো জায়গাটা টিন দিয়ে ঘেরা এবং মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাইনবোর্ড দেখতে পান। ঘিরে নেয়া জায়গার মধ্যে তাদের মাদ্রাসাও রয়েছে।
শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফুয়ারা খাতুন জানান, জায়গাটি খাস জমি। ওই জায়গাটি উপজেলা মিনি স্টেডিয়ামের জন্য প্রস্তাব রাখা হয়েছে। জায়গাটিতে অবৈধভাবে একটি স্কুলের নামে সাইনবোর্ড দিয়ে ঘিরে দেয়ার সংবাদ পেয়েছি।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

2 × 1 =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ