Menu

নিউজিল্যান্ডে টেস্ট দলে সৌম্য

সাতমাথা অনলাইন ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ধবলধোলাই হয়েছে বাংলাদেশ দল। সেই তিক্ততা নিয়ে দেশের পথ ধরবেন মাশরাফি, শাফিউল ইসলাম, সাইফউদ্দিন, সাব্বিররা। তাদের সঙ্গে দেশে ফেরার কথা ছিল টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারেরও। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শুরু হতে যাওয়া তিন টেস্টের সিরিজে অন্তভূক্ত করা হয়েছে তার নাম। বাংলাদেশ দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে-টেস্ট সিরিজের দলে ছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু তিনি আঙুলের ইনজুরির কারণে নিউজিল্যান্ড আসতে পারেননি। ২৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া প্রথম টেস্ট ম্যাচেও সাকিবকে পাওয়া যাবে না। তার জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে সৌম্য সরকারকে। দলের ব্যাটিং শক্তি বাড়াতেই দলে এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। তিনি ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজের দলে ছিলেন। তবে কিউই সফরের টেস্ট দলে রাখা হয়নি তাকে।

সৌম্যকে দলে রাখার ব্যাপারে হাবিবুল বাশার ক্রিকবাজকে বলেন, ‘দলে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পেরেছে এমন অভিজ্ঞ একজনের চিন্তায় সৌম্যকে টেস্টের দলে রাখা হয়েছে।’ তবে তারা টেস্ট সিরিজে সাকিবের ফেরার ব্যাপারটি উড়িয়ে দিচ্ছেন না। আশা করছেন সাকিব পরের টেস্টে দলে ফিরবেন।

হাবিবুল বাশার বলেন, ‘আমরা পুরো সিরিজেই সাকিবকে পাবো না এমনটা ভাবছি না। তবে প্রথম টেস্টে আমরা তাকে দলে পাচ্ছি না। তার আঙুলে যে ক্লিপ দেওয়া আছে সেটা খোলার পরে কি অবস্থা দাঁড়ায় তা দেখার অপেক্ষায় আছি। তার পরে আমরা তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো। খেলতে পারলে সে অবশ্যই পরের ম্যাচগুলোর জন্য দলে যোগ দেবে।’

সৌম্য সরকারের অবশ্য সর্বশেষ টেস্ট কিংবা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ ভালো যায়নি। উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে তিনি মাত্র ৩০ রান করেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৫০ রান। এর আগে চোটের কারণে টেস্ট সিরিজের দলে তাসকিনের বদলে নেওয়া হয় এবাদত হোসেনকে।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

20 − 9 =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ