Menu

তুরস্কের পার্লামেন্টে পিকেকে’র সমর্থকদের চান না এরদোগান

সাতমাথা ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, পিকেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পৃক্ততা রয়েছে এমন কাউকে তুরস্কের পার্লামেন্টে চায় না একে পার্টি।

বুধবার পার্লামেন্টারি গ্রুপ মিটিংয়ে এরদোগান বলেন, তুরস্কের পার্লামেন্টে আমরা আর পিকেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বৃদ্ধি দেখতে চাই না। এ সময় তিনি রিপাবলিক পিপলস পার্টি (সিএচপি) এবং দ্য গুড পার্টিসহ (আইপি) অন্যান্য দলের বিষয়েও মন্তব্য করেন। খবর ডেইলি সাবাহ।

সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সঙ্গে পিকেকে পিপলস’ ডেমোক্রেটিক পার্টি (এইচডিপি) দিয়ারবাকিরের ডেপুটি সেমরা গুজেলের ছবি যেখানে তিনি বলেছিলেন যে তিনি তার বাগদত্তা ছিলেন— এমন ছবি দেখার পর প্রতিক্রিয়া হিসেবে এরদোগান এসব কথা বলেন।

পিকেকে সন্ত্রাসী ভলকান বোরা, যার কোড নাম ‘কোসেরো মেলেতি’। তিনি ছিলেন আদিয়ামান প্রদেশে দুটি সন্ত্রাসী হামলার অপরাধীদের একজন। তিনি সেই সন্ত্রাসী স্কোয়াডের অংশ ছিলেন, যেটি জেন্ডারমেরি সিপিএলকে হত্যা করেছিল।

২০১৭ সালে বোরা আদিয়ামান প্রদেশে তুর্কি সৈন্যদের বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন। ছবিগুলো অনেক পরে তদন্তের মাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে।

ওই ছবিগুলোতে এইচডিপি আইনপ্রণেতা গুজেল সন্ত্রাসী বোরাকে তার বাগদত্তা বলে দাবি করেছিলেন।

তবে ছবিগুলো প্রকাশ পাওয়ার পর গুজেল দাবি করেছেন, তিনি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তবে ছবিগুলো এখন তাকে ঘায়েল করার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে৷

গত মঙ্গলবার ন্যাশনালিস্ট পার্টি (এমএইচপি) চেয়ারপার্সন বাহচেলিও বলেছেন, তার দল সংসদে সন্ত্রাসবাদীদের চায় না। কারণ তিনি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে সম্পর্কের জন্য এইচডিপির কঠোর সমালোচনা করেছিলেন।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

5 + six =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ