Menu

অস্ট্রেলিয়াকে শক্তি দেখাল ভারত

সাতমাথা অনলাইন ডেস্ক: ক্রিকেটে শুধু মাঠে নয়, মাঠের বাইরেও পরাশক্তি ভারত। দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) কথাটা আবারও প্রমাণ করল। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে (সিএ) তাদের ২০১৯-২০ মৌসুমে ঘরোয়া সূচি পুনরায় নির্ধারণ করতে বাধ্য করেছে বিসিসিআই। আর এতে গত ৪০ বছরের মধ্যে এবারই প্রথমবারের মতো গ্রীষ্মকালীন মৌসুমে ঘরের মাঠে কোনো ওয়ানডে সিরিজ না খেলার শঙ্কায় পড়েছে অস্ট্রেলিয়া।

আইসিসির ভবিষ্যৎ সফরসূচি (এফটিপি) অনুযায়ী, আগামী গ্রীষ্মকালীন মৌসুমে ঘরের মাঠে ভীষণ ব্যস্ত সময় কাটাবে অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড এ সময় অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবে। এরপর ফেব্রুয়ারিতে প্রস্তাবিত দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। এফটিপি অনুযায়ী, এই গ্রীষ্মকালীন মৌসুমেই (২০২০ সালের জানুয়ারির শেষ দিকে) তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে ভারত সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। দেশটির গ্রীষ্মকালীন ক্রিকেট সূচিতে এই সফরসূচি অপ্রত্যাশিত। কারণ গ্রীষ্মকালীন মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া সাধারণত ঘরের মাঠে খেলে থাকে।

সে যা-ই হোক, এই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সূচি বছরের শেষ দিকে পুনর্নির্ধারণ করতে বিসিসিআইকে অনুরোধ করেছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ড (সিএ)। কিন্তু বিসিসিআই এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। শুধু প্রত্যাখ্যান করেনি, উল্টো এই সিরিজের সূচি আরও এগিয়ে এনে জানুয়ারির মাঝামাঝিতে নির্ধারণ করেছে বিসিসিআই। এমন খবরই জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’।

এতে বিপাকে পড়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ড। ভারত সূচি না পাল্টিয়ে আরও এগিয়ে আনায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পূর্বনির্ধারিত ঘরের মাঠে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ মুলতবি করতে বাধ্য হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার নতুন বছরের টেস্ট শেষ হওয়ার এক দিন পর সিডনিতে এই ওয়ানডে সিরিজ শুরু হওয়ার কথা ছিল। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড এই সিরিজ মুলতবি রাখতে সম্মত হয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের অর্থ হলো, আগামী গ্রীষ্মে ঘরের মাঠে কোনো ওয়ানডে খেলা হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়ার। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওই সিরিজটাই ছিল অস্ট্রেলিয়ার ‘হোম সামার’-এ একমাত্র সিরিজ। ১৯৭৭ সালে ওয়ার্ল্ড সিরিজ ক্রিকেট বিপ্লবের পর থেকেই অস্ট্রেলিয়ার গ্রীষ্মকালীন ঘরোয়া মৌসুমে ওয়ানডে সিরিজ থাকেই। টিভি সম্প্রচারক সংস্থা এবং দর্শকদেরও আগ্রহ থাকে সংক্ষিপ্ত সংস্করণের এই সিরিজ নিয়ে। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ভারত তাদের ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজের সূচি পুনর্নির্ধারণ করলেও অস্ট্রেলিয়ার আপত্তি নেই। কারণ এই সিরিজ বাতিল কিংবা মুলতবি করা হলে লাখ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হতো অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডকে। আর তাই কোনো ওজর-আপত্তি ছাড়াই বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে সিএ।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।

No comments

Leave a Reply

five + 19 =

সম্পাদকীয়

    উপ-সস্পাদকীয়

    সংবাদ আর্কাইভ

    সংবাদ